সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৫:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
হাটহাজারীতে ১১ইউনিয়নে ৬টিতে নৌকার বিজয় হাটহাজারীতে ইয়াবা ট্যাবলেটসহ রুবেল নামের এক মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার হাটহাজারীতে নারিকেল গাছ থেকে পড়ে এক সিএনজি চালকের মৃত্যু হালদা নদী থেকে পাঁচ হাজার মিটার জাল ও বড়শি জব্দ করেছে উপজেলা প্রশাসন আসছে পারভেজ হুসেন তালুকদারের “চাওয়া না চাওয়া” হাটহাজারীতে মহিলা দাওয়াতে খায়র ও সুন্নি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হাটহাজারীতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় একশিশুর মৃত্যু আশঙ্কাজনক মা বগুড়ায় স্থানীয় তরুনদের নিয়ে “চিন্তন- সাহিত্য সাংস্কৃতিক পরিসদ “নামে একটি সংগঠন যাত্রা শুরু হাটহাজারীতে ইয়াবাসহ এক মাদক ব্যবসায়ী আটক হাটহাজারীর সাত প্রার্থীর আপিলে এক মনোনয়ন পত্রের বৈধতা

এনজিও’র ধর্মান্তকরণের অপতৎপরতা!

তাওহিদুল ইসলাম ফাহিম
  • আপডেট সময়: মঙ্গলবার, ১০ আগস্ট, ২০২১
  • ২১৯ বার পঠিত:

ইসলামবিরোধী তাগুতী শক্তি মুসলমানদের বিপথগামী করে ধ্বংস করার নিমিত্তে নানাভাবে কাজ করে যাচ্ছেে।

সংক্ষেপে N.G.O তার পূর্ণ রূপ, Non Grovernment Organiesation. বেসরকারি সেবামূলক সংস্থা।

তবে বর্তমান এনজিও গুলো ইষ্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি’র ডিজিটাল রূপ হিসেবে সমাজের চিহ্নিত। কারণ তাদের কার্যক্রম সেভাবেই প্রতিভাত হচ্ছে।

বাংলাদেশে এনজিও’র আগমন হয় ১৯৬০ সালে। ৭০ এর জলোচ্ছ্বাস ও ৭১ এর স্বাধীনতা যুদ্ধ শেষে দেখা দেয়, বাংলার আকাশে নেমে আসে খাদ্য সংকটের মত ভয়াবহ মহামরী।ঠিক তখনই সংকট নিরসন ও সমাজিক পূর্ণগঠনের ব্যানারে এদেশে শেকড় গেড়ে বসে বিষাক্ত এনজিও সংস্থাগুলো। সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে এদেশের সাধারণ জনতার সাথে মিশে জনগণের মাঝে আস্থা অর্জনে সক্ষম হয় তারা। অতঃপর তারা এদেশের সামাজিক ,রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও ধর্মীয় অঙ্গনে ব্যাপক অপতৎপরতা শুরু করে।

বাংলাদেশে বর্তমান এনজিও’র সংখ্যা প্রায় পঁচিশ থেকে ত্রিশ হাজারের মত। এদের অধিকাংশ খৃস্ট ধর্ম প্রচারে নিয়োজিত এবং এক্ষেত্রে খৃস্টান মিশনারীদের তারা পরোক্ষ বা প্রত্যক্ষভাবে সহযোগীতা করছে।

ইউরোপীয় এবং পশ্চিমা সংস্কৃতির প্রচার ও খৃস্ট ধর্মে ধর্মান্তরিত করার অপতৎপরতায় যে, এনজিও সংস্থা গুলো জড়িত, তাদের ১ম সারীতে রয়েছে- ব্র্যাক, কেয়ার, কারিতাশ, মিশন, ওয়ার্ল্ড ভিশন, সিড়িএস, সিসিডিবি, এইএফআরসি, ট্রিপল আর সি, উএসএআইড়ি, চার্চ অব বাংলাদেশ, মিশন অব দাংলাদেশ, হিড় বাংলাদেশ প্যান ইন্টারন্যাশনাল প্রভৃতি। বিপুল অর্থের বিনিময়ে সেবার মুখোশধারী বিষাক্ত এনজিও সংস্থাগুলো এদেশে খৃস্ট ধর্ম প্রচার করছে। এবং বহুমুখী প্ররোচনা দিয়ে এদেশের ধর্মপ্রাণ মানুষদের ধর্মান্তরিত করে খৃস্ট ধর্মে দীক্ষিত করছে।

পরিশেষে: ধর্মপ্রাণ যুব-সমাজের প্রতি আহবান জানাচ্ছি, ইসলাম ও মুসলিমদের মর্যাদ সমুন্নত রাখতে, দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষা করতে একদল শক্তিশালী যুব-তরুণ সমাজকে এগিয়ে আসতে হবে। এ দ্বায়িত্ব পালনে আসুন আমরা যথোচিত কর্মসূচি গ্রহন করে ইসলামবিরোধী অপতৎপরতা ও এনজিও গুলোর ধর্মান্তকরণ মিশনের বিরূদ্ধে সোচ্চার হই। আল্লাহ আমাদের কে যুব-তরুণ ছাত্র সমাজ নিয়ে খৃস্টান মিশনারীর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ দুর্বার আন্দোলন করে এনজিও’র শেকড় উপড়ে ফেলবার তাওফিক দান করুন আমিন।

লেখকঃ
তাওহিদুল ইসলাম ফাহিম
শ্রীমুরা রামু কক্সবাজার
শিক্ষার্থী: বনগ্রাম কাছেমুল উলুম মাদ্রাসা রাঙ্গুনিয়া চট্রগ্রাম।

সংবাদটি শেয়ার করুন:

One thought on "এনজিও’র ধর্মান্তকরণের অপতৎপরতা!"

  1. তাওহিদুল ইসলাম ফাহিম says:

    জাজাকাল্লাহ জাজাকাল্লাহ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই রকম আরো সংবাদ দেখতে:
dailybhorerbangla website logo
© All rights reserved © 2020 Dailybhorerbanglanews.Com
Design & Development BY Hostitbd.Com